,



পাল্টাপাল্টি নয়, আ.লীগও সমাবেশ করবে: কাদের

ঢাকা: আগামী ১৮ নভেম্বর (শনিবার) আওয়ামী লীগের ডাকা নাগরিক সমাবেশকে বিএনপির সঙ্গে পাল্টাপাল্টি হিসেবে না দেখতে সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বিএনপির সমাবেশে নগরবাসীর দুর্ভোগ হয়েছে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, জনদুর্ভোগ যাতে না হয় সেজন্য আমরা শনিবার সমাবেশ দিয়েছি।

আজ সোমবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাওয়া উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। সভার আয়োজন করে সাংবাদিকদের শীর্ষ দুই সংগঠন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্লিজ আমি আপনাদের কাছে মাফ চাচ্ছি। আমরা কোন পাল্টাপাল্টি সমাবেশ করতে চাচ্ছি না। আমাদের সমাবেশ নিয়ে রাজনীতি করতে চাচ্ছি না। আপনারা আমাদের সমাবেশকে বিএনপির সমাবেশের সাথে পাল্টাপাল্টি বানাবেন না।

কাদের বলেন, ২০১৪ সালে যারা আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়েছে, যারা বাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়েছে তারা বলেন রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তনের কথা। আমাদের দেশে তারাই নীতিকথা বলে যারা বেশি দুর্নীতিবাজ। এই দেশে যারা নষ্ট রাজনীতি সূচনা করেছে, যারা সাম্প্রদায়িকতা করার চেষ্টা করেছে, যারা জঙ্গিবাদে মদদ দিয়েছে তারা বলে রাজনীতির গুণগত মান পরিবর্তনের কথা। এটা ভূতের মুখে রামরাম তাই নয় কি?

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কিছু সাংবাদিক আছে মফস্বলে তারা শুধু কার্ড গলায় ঝুলিয়ে, প্যাড নিয়ে চাঁদাবাজি করে। তারা থানার ওসি, ভূমি অফিস, টিএনও অফিসে বসে থাকে। অথচ তারা একলাইন শুদ্ধভাবে লিখতে জানে না। গ্রামের মানুষ সাংবাদিক নাম শুনলেই বলে উঠে সাংঘাতিক।

নবম ওয়েজবোর্ড গঠনের আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, কী কষ্ট করে সাংবাদিকরা জীবিকা নির্বাহ করেন তা আমি জানি। কারণ আমি নিজে একজন সাংবাদিক ছিলাম। তথ্যমন্ত্রীকে বলব খুবই মনোযোগের সঙ্গে, চেতনার সঙ্গে, ভালোবাসার সঙ্গে দেখবেন বিষয়টি।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস চ্যান্সেলর আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান, দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব ওমর ফারুক, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শাবান মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ