বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮ | ২৯, অগ্রহায়ণ, ১৪২৫
 / জাতীয় / ‘আন্দোলনের ফলে সড়ক নিরাপত্তায় জনসচেতনতা বেড়েছে’
নিজস্ব প্রতিবেদক, ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Thursday, 9 August, 2018 at 6:12 PM, Count : 273
ছবি: ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত

ছবি: ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ফলে সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ে জনসচেতনতা বেড়েছে এবং তাদেরও কাজ করতে সুবিধা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সারা দেশে চলমান ট্রাফিক সপ্তাহের কার্যক্রম দেখতে আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর গুলিস্তান এলাকা পরিদর্শন করেন সেতুমন্ত্রী। এসময় তিনি বিভিন্ন গাড়ির চালকদের কাছে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আছে কি না, তা পরীক্ষা করে দেখেন। পরে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

ছবি: ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত

ছবি: ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত

এসময় তিনি বলেন, সারাদিনই শতাধিক গাড়িরফিটনেস এবং পরীক্ষা-নিরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে করে গাড়ির ফিটনেস দিয়েছি। এটা আপাতত ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে সব সঠিক হচ্ছে, এটা আমি বলতে পারি না। কারণ, বিআরটিএতে অনিয়ম-দুর্নীতি একেবারে কমে গেছে, এটা আমি বলতে পারি না। দালালের দৌরাত্ম্য এখনো এখানে আছে। ভেতরে যোগসাজশ অবশ্যই আছে।
ছবি: ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত

ছবি: ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত


ম্যাজিস্ট্রেটের সংখ্যা যেটা এখন ৫ জন উল্লেখ করে কাদের বলেন, আমাদের ম্যাজিস্ট্রেটের সংখ্যা যেটা এখন ৫ জন আছে, আমরা জেলা প্রশাসক থেকে সহযোগিতা নিয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের ঘাটতি পূরণের চেষ্টা করছি। তবে আমি আশা করি ক্রমান্বয়ে এ পরিস্থিতির উন্নতি হবে। এখন অন্তত রাস্তায় বের হলে গাড়ীর ফিটনেসের কিছু কাগজপত্র পাওয়া যায়। এবং ড্রাইভিং লাইসেন্সও পাওয়া যায়। এখন যেভাবে ভিড় সকাল থেকে রাত তাতে আমার মনে হয় ক্রমান্বয়ে পরিস্থিতির উন্নতি হবে। তবে সময় লাগবে। আমি মনে করিনা খুব দ্রুত আমরা এ কাজটি সম্পন্ন করতে পারব।


সেতুমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন অফিসগুলো যেমন, আমাদের বিআরটিএর অফিসগুলো আছে এই অফিসে ঢাকা মিরপুরের পরেই এটা গুরুত্বপূর্ণর। তবে এটা মিরপুরের মত গুরুত্বপূর্ণর নয়। তারপরও এখানে খোলামেলা জায়গা আছে, অনেক কাজ করারও সুযোগ আছে।
ছবি: ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত

ছবি: ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত


ব্যাংক কাউন্টারের সংখ্যা কম জানিয়ে এসময় মন্ত্রী বলেন,  আমাদের ব্যাংক কাউন্টার একটা বড় সমস্যা। খুব কম সংখ্যক কাউন্টার এখানে। যে কারনে লম্বা লাইন পরে যাচ্ছে। সে কারনে আমি এখনি  বিআরটিএর চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দিয়েছি, মোবাইল ব্যাংকিং এর ব্যাবস্থা করার জন্য। মোবাইল ব্যাংকিং এর সুবিধা থাকলে মানুষের এতো লম্বা লাইন পরবে না এবং কিছুটা স্বস্তি আসবে। সেইসাথে কিছুটা সময়ের সাশ্রয় হবে।


তিনি আরো বলেন, আন্দোলন হওয়ার পথে, যেসব বিষয় ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলনে নামতে প্রলুব্ধ করে, এরকম কিছু না থাকলে তারা আন্দোলনও করবে না। এছাড়া ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলনের জন্য এখন যেভাবে সচেতনতা বেড়েছে, এটাও একটা ভয় ভীতির কারণ হয়েছে। মাঝে মাঝে এ ধরনের চাপ না আসলে আমাদের সচেতনতা বাড়ে না। তাই এ চাপ দরকার ছিল।


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162