এই মাত্র পাওয়া : সংসদ থেকে তিন মাসের ছুটি নিয়েছেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফ
মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮ | ৩, আশ্বিন, ১৪২৫
 / জেলার খবর / অপহরণের ১৬ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুলছাত্রী জেসমিন
মোঃ সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি।।ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Friday, 14 September, 2018 at 7:24 PM, Count : 1108
অপহরণের ১৬ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুলছাত্রী জেসমিন

অপহরণের ১৬ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুলছাত্রী জেসমিন

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে অপহৃত নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী জেসমিন আক্তার (১৫) অপহরণের ১৬ দিনেও উদ্ধার হয়নি। 

সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার কুরণী গ্রামের আঃ লতিফ সিকদারের মেয়ে জেসমিন আক্তার (১৫) কুরণী জালাল উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রতিদিনের মতো গত ২৯ আগস্ট বিদ্যালয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে রওনা হয় তবে পথিমধ্যে উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের সোহাগপাড়া গ্রামের আমির উদ্দিনের ছেলে সোহেল মিয়া (৩৩) ও অজ্ঞাতনামা ২-৩ জন জেসমিনকে প্রাইভেটকারে উঠিয়ে নিয়ে চলে যায়।

উল্লেখ্য যে, ঘটনার দিন জেসমিনকে অনেক খোজাখুজি করার পরও না পেয়ে ঘটনার দুই দিন পর মির্জাপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন জেসমিনের বাবা লতিফ সিকদার। অভিযোগে উল্লেখ রয়েছে, অভিযুক্ত ১নং বিবাদী সোহেল মিয়া প্রতিনিয়তই জেসমিনকে স্কুলে যাওয়ার পথে কু-প্রস্তাব দিত। প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে অপহরণ করা হয় বলে পরিবারের অভিযোগ। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ১নং বিবাদী সোহেল মিয়ার পিতা আমির উদ্দিন ও প্রাইভেটকার চালক আব্বাস উদ্দিনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হলে এমতাবস্থায় মেয়ের বাবা লতিফের কাছে একটি ফোন আসে ঐ ফোনে তার মেয়ে জেসমিন কান্না স্বরে কথা বলে,“আব্বু তুমি মামলা উঠিয়ে নাও তা না হলে আমাকে মেরে ফেলবে ওরা! তারপর থেকেই ঐ নম্বারটি বন্ধ থাকে এবং কোনো খোজ খবর এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি বলে জানান মেয়ের বাবা লতিফ। পরবর্তীতে আটককৃত দুইজনের কাছ থেকে পুলিশ কোনো তথ্য না পেলে সোহেল ও ঘটনার সাথে জড়িতদের থানায় হাজির করা হবে মর্মে আটককৃত দুইজন মুচলেকা দিয়ে চলে যায়। কিন্তু মুচলেকা দেয়ার পরও জড়িতদের কোনো তথ্য এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি এবং অপহরণের ১৬ দিন পার হয়ে যাওয়ার পরও পুলিশ জেসমিনকে উদ্ধার করতে পারেনি ও ঘটনার সাথে জড়িতদের কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি।
এ বিষয়ে মির্জাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম মিজানুল হক ডেসটিনি অনলাইনকে বলেন, সোহেল মিয়াসহ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের আপ্রাণ চেষ্টা চলছে।


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162