বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৮, ২০১৮ | ২, কার্তিক, ১৪২৫
 / স্বাস্থ্য / প্রস্রাব আটকিয়ে রাখেন, তাহলে অপেক্ষা করছে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি
স্বাস্থ্য ডেস্ক, ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Saturday, 22 September, 2018 at 8:49 PM, Update: 22.09.2018 9:27:42 PM, Count : 161
প্রস্রাব আটকিয়ে রাখেন, তাহলে অপেক্ষা করছে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি

প্রস্রাব আটকিয়ে রাখেন, তাহলে অপেক্ষা করছে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি

বাসায় টিভি দেখছেন কিংবা অফিসে মিটিং করছেন। হয়তো এর বাইরে কোনও কাজ নিয়ে আপনি ব্যস্ত, এমন সময়ে প্রাকৃতিক ডাক আসা স্বাভাবিক। মুহূর্তেই মাথায় সংকেত আসল টয়লেটে যাওয়া বিশেষ জরুরি। ব্লাডার বা মূত্রথলিতে ইউরিন জমার ফলে তলপেটে ইতিমধ্যে চাপ শুরু হয়েছে। মস্তিষ্কের সংকেতকে গুরুত্ব না দিয়ে আপনি প্রস্রাবের বেগকে আটকিয়ে রাখলেন। হাতের কাজ শেষ হওয়ার পর বের হবেন বলে টয়লেটে যাচ্ছেন না। অথবা সেখানকার টয়লেটে অস্বস্তিবোধ করছেন। বাইরে পুরুষদের জন্য পাবলিক টয়লেট থাকলেও মহিলাদের জন্য এ সুযোগ নেই বললেই চলে। প্রস্রাবের বেগ আসলো দুপুরে, আপনি তা বিকেল কিংবা সন্ধায় বাসায় যাওয়া পর্যন্ত আটকিয়ে রাখলেন। নিয়মিত যদি এভাবে চালিয়ে যেতে থাকেন তাহলে আপনার জন্যই অপেক্ষা করছে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি।

চলুন এবার তাহলে প্রস্রাব আটকিয়ে রাখার সমস্যাগুলো জেনে নেয়া যাক-

প্রস্রাবের বেগ দীর্ঘসময় আটকে রাখার ফলে কিডনিজনিত সমস্যা হয়। সুস্থ ও স্বাভাবিক একজন মানুষের দৈনিক ৭-৮ বার প্রস্রাব করার জন্য টয়লেটে যাওয়ার প্রয়োজন হয়। যদি এর থেকে কম হয় তাহলে আপনি ধরে নিন, আপনি প্রয়োজন অনুযায়ী পানি পান করেন না। শরীরের অপ্রয়োজনীয় পানি মূত্রনালীর মাধ্যমে বের হয়। সে জন্য পর্যাপ্ত পানি পান করার পর অথবা তরলজাতীয় খাবার খাওয়ার পর বেশ কয়েকবার টয়লেটে যাওয়ার প্রয়োজন হবে। মূত্রথলিতে ১৫ আউন্স বা ৮ গ্লাস পরিমাণ লিকুইড বা পানি জমা রাখার ক্ষমতা রাখে। মূত্রথলিতে যখন ইউরিনের চাপ পড়ে সেই মুহূর্তেই মস্তিষ্কে সংকেত পাঠায় প্রস্রাব করার জন্য। এমতবস্থায় যদি আপনি সেই সংকেতকে পাত্তা না দিয়ে কাজে লেগেই থাকেন তাহলে একটা সময় আর এই সংকেত বুঝতে পারবেন না। মূত্রথলিতে যদি প্রস্রাব দীর্ঘসময় জমে থাকে তাহলে সেখানে জন্ম নেয় ব্যাকটেরিয়া। ফলে মূত্রথলিতে ইনফেকশনসহ কিডনিজনিত সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সে জন্য পুরুষ বা মহিলা কারও প্রস্রাব আসলে তা আটকিয়ে রাখা ঠিক নয়। এতে করে স্বাস্থ্যরও মারাত্মক ঝুঁকি থাকে।

এক প্রতিবেদনে টরন্টো ন্যাচারোপ্যাথিক হেলথ ক্লিনিকের চিকিৎসক ডা. শ্যামানদিপ বালি হাফিংটনপোস্টে এমন তথ্য জানিয়েছেন। টয়লেটের পরিবেশ কেমন থাকবে সেই সম্পর্কে বলা হয়েছে, টয়লেটের পরিবেশ ব্যবহারকারীর স্বাচ্ছন্দ্য অনুযায়ী হবে। কখনো কখনো দেখা যায়, টয়লেটের পরিবেশ নোংরা হওয়ার কারণে প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে কেউ কেউ বিলম্ব করে। সে জন্যই এখন অনেক টয়লেটে ভদ্রতার সঙ্গে লেখা থাকে, ‘For the comfort of the next users please leave the washroom as you would expect to find it.’

ডা. বালি প্রস্রাব আটকিয়ে রাখার বিষয়ে বলেন, দীর্ঘ সময় যদি আপনি প্রস্রাব আটকিয়ে রাখেন তাহলে মূত্রথলিটি হতে পারে ব্যাকটেরিয়ার প্রজনন ক্ষেত্র। কোনও কাজে ব্যস্ত থাকার সময় প্রাকৃতিক কাজে সাড়া দেয়ার গুরুত্ব কমে যায়। হয়তো অফিসের টয়লেট ব্যবহারে আপনি অস্বস্তি বোধ করেন। বিশেষজ্ঞরা বলে থাকেন, কিডনির যত্ন নেয়ার অর্থই হচ্ছে কখন বিপদজনক বলয়ে প্রবেশ করছেন আপনি সেটা স্পষ্ট বুঝতে পারা। মূত্রথলি গড়ে ১৫ আউন্স তরল ধারণ করার ক্ষমতা রাখে। আপনি যদি দীর্ঘ সময় প্রস্রাব আটকিয়ে রাখেন তাহলে এতে করে মূত্রথলি প্রসারিত হয়। মূত্রথলি পরিপূর্ণ হলে মস্তিষ্কে সে সংকেত পাঠায়। আর এটা মূত্রাশয়ের স্বয়ংক্রিয় প্রতিক্রিয়া। এ কারণে আপনি নিকটস্থ্য টয়লেটে যাওয়ার প্রয়োজন অনুভব করে থাকেন। তবে আপনি যদি নিয়মিত প্রস্রাব আটকিয়ে রাখার অভ্যাস গড়েন তাহলে একটা সময় আপনি বুঝে উঠতে পারবেন না যে, কখন আপনার প্রস্রাব করার প্রয়োজন। আপনি এই ক্ষমতাটুকুও হারিয়ে ফেলবেন।


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162