সোমবার, জানুয়ারী ২১, ২০১৯ | ৮, মাঘ, ১৪২৫
 / জেলার খবর / সোনারগাঁয়ে বালু ভরাট করে মেঘনা নদী দখলের অভিযোগ
সোনারগাঁ(নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি ,ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Friday, 11 January, 2019 at 7:49 PM, Update: 11.01.2019 8:06:27 PM, Count : 129
সোনারগাঁয়ে বালু ভরাট করে মেঘনা নদী দখলের অভিযোগ

সোনারগাঁয়ে বালু ভরাট করে মেঘনা নদী দখলের অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের পিরোজপুর ইউনিয়নের জিয়ানগর এলাকায় মেঘনা নদী জায়গা ও সরকারী খাস জমি বালু দিয়ে ভরাট করে নদী দখলের অভিযোগ উঠেছে। দীর্ঘ ৮বছর আগে এ নদী দখলের অভিযোগে এ জায়গায় বালু ভরাট কাজ বন্ধ করে দেয় স্থানীয় প্রশাসন। পুনরায় গত এক সপ্তাহ ধরে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য কবির হোসেন ও ব্যবসায়ী শাহজালালের নেতৃত্বে আবারো নদী দখল চলছে। স্থানীয় প্রশাসন দেখেও না দেখার ভান করে আছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করেছেন এলাকাবাসী। 

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের জিয়ানগর এলাকায় স্থানীয় ব্যবসায়ী শাহজালাল ২০১০সালে হাই স্পীড নামের একটি শীপইয়ার্ড কোম্পানিকে এলাকায় প্রায় ১০ একর সম্পত্তি ক্রয় করে দেয়। এসময় কোম্পানির পক্ষে শাহজালাল এলাকার প্রায় তিন একর সরকারী খাস সম্পত্তি দখল করে বালু ভরাট শুরু করে। এ সময় পাশ্ববর্তী মেঘনা নদীতে গাছের খুটি পুতে মেঘনা নদী দখল করে। মেঘনা নদী দখল করার অভিযোগ সময়ে স্থানীয় প্রশাসন কোম্পানির বালু ভরাট করা বন্ধ করে দেয়। হাই স্পীড শীপইয়ার্ড কোম্পানি পরবর্তীতে শাহজালালের মাধ্যমে সোনারগাঁ রিজোর্ট সিটি নামের একটি কোম্পানির কাছে জমি বিক্রি করে দেয়। 

সরেজমিনে জিয়ানগর এলাকায় মেঘনা নদীর পাড়ে গিয়ে দেখা যায়, অর্ধ শতাধিক শ্রমিক নদীর পানিতে বালু বস্তা ফেলে নদীর জায়গা দখল করছে। এছাড়াও ওই স্থানে দুটি ভেকু দিয়ে উপর থেকে বালু নদীর দিকে সরিয়ে নিচ্ছে। ভাটিবন্দর গ্রামের আলী হোসেন, জিয়ানগর গ্রামের মোবারক হোসেন বলেন, কবির মেম্বার, আফজাল যে ভাবে নদীর জায়গা দখল করে বালু ভরাট করছে এক সময় আমাদের আর নদীতে নামার জায়গা থাকবে না। নদীর জায়গা ভরাটের বিষয়ে বাঁধা দেওয়ার চাঁদাবাজির মিথ্যা মামলা দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে। এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। 

পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন, নদী দখলের বিষয়ে খবর পেয়ে কবির মেম্বারকে কাজ না করার জন্য বাঁধা দেওয়া হয়েছে। আমি নদী ও খাল দখলের বিষয়ে বরারবই প্রতিবাদ করেছি। কবির মেম্বার ও শাহজালাল একটি সিন্ডিকেট করে এ বালু ভরাট কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। আমি স্থানীয় প্রশাসনকে বিষয়টি অবগত করেছি। 

পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য অভিযুক্ত কবির হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমি এ কাজের সাথে জড়িত না। এ কাজ কোম্পানির কাছ থেকে এনে শাহজালাল করাচ্ছেন। অভিযুক্ত ব্যবসায়ী শাহজালালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, নদীর কোন জায়গা ভরাট করা হচ্ছে না। কোম্পানির ক্রয়কৃত জায়গায় কাজ চলছে। 

সোনারগাঁ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বিএম রুহুল আমিন রিমন বলেন, নদী দখলের বিষয়ে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সোনারগাঁ উপজেলা  নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহিনুর ইসলাম বলেন, কোন ভাবেই নদীর জায়গার দখল করতে দেওয়া হবে না। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সহকারী কমিশার ভূমিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, কোন ভাবেই নদীর জায়গা দখল করতে দেওয়া হবে না। কেউ নদীর জায়গা দখল করলে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 



দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162