আজ শনিবার, ৮ মাঘ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, ২১ জানুয়ারী ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
সুন্দরগঞ্জে এমপি লিটন ও ছাত্রলীগ নেতা মামুন হত্যা একইসূত্রে গাঁথা
গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি :
Published : Thursday, 12 January, 2017 at 2:50 AM, Count : 53
সুন্দরগঞ্জে এমপি লিটন ও ছাত্রলীগ নেতা মামুন হত্যা একইসূত্রে গাঁথাগাইবান্ধা-১ সুন্দরগঞ্জ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন ও স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা এসএম খলিলুর রহমান মামুন হত্যাকান্ডএকইসূত্রে গাঁথা বলে মনে করছেন নিহত মামুনের বাবা সার্জেন্ট (অব.) খায়রুজ্জামান ওরফে আঙ্গুর মিয়া। তিনি জানান এমপি লিটন হত্যার আগে সুন্দরগঞ্জে টার্গেট কিলিংয়ের শিকার হয়েছিলেন এসএম খলিলুর রহমান মামুন। ঘটনার একদিন পরই পুলিশের এসআই হিসেবে তার কর্মজীবন শুরুর কথা ছিল। কিন্তু জামায়াত-শিবিরের ক্যাডাররা তাকে স্থানীয় ডোমের হাট বাজারে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে।
এমপি লিটন ও মামুন হত্যাকানাড সুন্দরগঞ্জকে মেধাবী নেতৃত্ব শূন্য করার জামায়াত-শিবিরের দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার একটি অংশ বলেও মনে করেন আঙ্গুর মিয়া। জানা গেছে ২০১৩ সালের ১৪ নভেম্বর মামুন হত্যাকান্ডের পর নিহতের বড় ভাই খালেদ রেজা বাবুল বাদী হয়ে সুন্দরগঞ্জ থানায় ২২ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পরও আসামিরা ছিল প্রকাশ্যে।
এখনও মামুনের বাবা-ভাইকে হুমকি দিয়ে যাচ্ছিল আসামিরা। বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে দেওয়ারও হুমকি দিয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু পুলিশ কোনও আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি। তবে আসামি ধরতে না পারলেও মামলা দায়েরের প্রায় ৫ মাস পর এজাহারভুক্ত ২২জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় পুলিশ। পরে ১৪ আসামি আতœসমর্পণ করলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠান। নিহত মামুনের বাবা আঙ্গুর মিয়া জানান আমার তিন ছেলেই উচ্চশিক্ষিত। তিন ছেলের মধ্যে মামুন দ্বিতীয়। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স পাস করেন। মামুন রাবি’র শাহ মখদুম হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। সুন্দরগঞ্জ উপজেলার রামজীবন ইউনিয়ন ছাত্রলীগেরও সভাপতি ছিলেন মামুন। এলাকার মানুষের কাছে ছিলেন খুবই জনপ্রিয়। আঙ্গুর মিয়া বলেন ‘এমপি লিটনও পছন্দ করতেন মামুন। বলতেন তার যোগ্য উত্তরসূরি। এগুলোই কাল হয়েছে মামুনের।
জামায়াত-শিবিরের দুর্বৃত্তরা তাকে টার্গেট করেই হত্যা করে।’ আঙ্গুর মিয়া বলেন ‘মামুন হত্যাকান্ডের বিচার যেন দ্রুত হয় এবং আসামিরা যেন ধরা পড়ে তার চেষ্টা করেছিলেন এমপি লিটন। দুর্ভাগ্য হচ্ছে যে পুলিশ এ মামলার একজন আসামিও গ্রেফতার করতে পারেনি। উল্টো আসামিরা আমাদের বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে ও প্রাণনাশেরও হুমকি দিচ্ছে।’ তিনি বলেন ‘এমপি লিটন ও মামুন হত্যাকান্ডএকইসূত্রে গাঁথা। কারণ মামুন জীবিত থাকলে এমপি লিটনকে হত্যা করা যাবে না। এ কারণে মামুনকে আগেই দুনিয়া থেকে সরিয়ে দিয়েছে খুনিরা।’ এমপি লিটন হত্যার পর মামুন হত্যা মামলার সাক্ষীদেরও আসামিরা প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছে বলে জানান মামুনের বাবা আঙ্গুর মিয়া। তিনি বলেন ‘মামুন হত্যা মামলার অন্যতম আসামি ও সুন্দরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা মাজেদুর রহমান এই মামলার এক নম্বর সাক্ষী মাইনুল ইসলামকে হুমকি দিয়ে বলেন আমার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিবা? তোমাদের তি জীবনের মায়া নাই?’ আঙ্গুর মিয়া বলেন ‘২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পর বাজারপাড়া গ্রামের মন্টুকে মোবাইলে ফোনে হুমকি দিয়ে মিজানুর রহমান বলেন বাড়াবাড়ি করবি, মামুনকে যেভাবে শোয়াইছি, তোকেও সেভাবে শোয়াইয়া দিব। তখন মোবাইল ফোনেই আমাদের ও মাইনুলের বাড়ি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন তিনি।’
মামুনের বড় ভাই মামলার বাদী খালেদ রেজা বাবুল বলেন ‘জামিনে বেরিয়ে আসামিরা প্রকাশ্যেই বাড়ির সামনে দিয়ে মহড়া দিয়ে যায়। হুমকি দেয়। দিনের বেলায় বের হলেও একা বের হই না। আর বের হলেও সন্ধ্যার আগেই বাড়ি ফিরে আসি। রাতে নিকট আত্মীয় এলেও পুরোপুরি নিশ্চিত না হয়ে দরজা খুলি না। এমপি লিটন হত্যার পর সেই আতঙ্ক আরও বেড়েছে।’ মামুন হত্যা প্রসঙ্গে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বলেন ‘একটা টগবগে মেধাবী তরুণকে প্রকাশ্যে হত্যা করা হলো। তিন বছর পরও সেই মামলার এজাহারভুক্ত আসামিদের গ্রেফতার করা হলো না কেন? এমপি লিটন হত্যার পর তাও জানতে চেয়েছি সুন্দরগঞ্জ থানার ওসির কাছে। কোনও জবাব নেই তাদের।’এ প্রসঙ্গে সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আতিয়ার রহমান বলেন ‘চার্জশিট দেওয়ার পর মামলা বিচারাধীন আছে। আসামিদের অনেককেই গ্রেফতার করা হয়েছে।’ বাকিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।



« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন। ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
সম্পাদক কর্তৃক ১৪৬ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা (৪র্থ তলা), ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত ও ডেসটিনি প্রিন্টিং প্রেস
১৩/২/এ কেএম দাস লেন, গোপীবাগ, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। যোগাযোগ : আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর, ঢাকা-১০০০।
ফোন : ৭১৭৪৭০২, ৯৫৫৯৯৪৯, ৯৫৫৯০০৬, বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০, email: ddaddtoday@gmail.com ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com, e-mail:destinyout@yahoo.com, dainikdestiny@gmail.com, destiny24news@gmail.com
Developed & Maintenance by i2soft