আজ বুধবার, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
 / প্রথম পাতা / বেসিক ব্যাংকের অর্থ জালিয়াতিতে আরো মামলা
ডেসটিনি রিপোর্ট
Published : Thursday, 7 December, 2017 at 9:46 PM, Count : 14
বেসিক ব্যাংকের অর্থ জালিয়াতিতে আরো মামলা

বেসিক ব্যাংকের অর্থ জালিয়াতিতে আরো মামলা

বেসিক ব্যাংকের অর্থ জালিয়াতির ঘটনায় আরো একটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল বুধবার  রাজধানীর বংশাল থানায় ৭ কোটি ৮৫ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তিনজনকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করা হয়। দুদকের জনসংযোগ কমর্কতা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এ খবর নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, দুদকের সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল হক বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলার আসামিরা হলেন, ইকসল ফুড অ্যান্ড বেভারেজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফুল ইসলাম, চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ও বেসিক ব্যাংকের বাবুবাজার শাখার সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. সেলিম। তবে এই মামলায়ও ব্যাংকটির সাবেক চেয়ারম্যান বাচ্চুর নাম নেই বলে প্রণব জানান।
আরো জানা যায়, আসামিরা পরস্পরের যোগসাজশে প্রতারণা করে যথাযথ যাচাই না করে অধিক্ষেত্রের বাইরে ঋণ দিয়ে অপরাধ করেছেন। যে কারণে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এদিকে বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারিতে ২০১৫ সালের ২১-২৩ সেপ্টেম্বর  ১৫৬ জনকে আসামি করে মতিঝিল, পল্টন ও গুলশান থানায় ৫৬টি মামলা করে দুদক।
১৫৬ জন আসামির মধ্যে বেসিক ব্যাংকের কর্মকর্তা ২৬ জন। বাকি ১৩০ জন আসামি ঋণগ্রহীতা ৫৪ প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী ও সার্ভে প্রতিষ্ঠানের। এর মধ্যে ব্যাংকের সাবেক এমডি কাজী ফখরুল ইসলামকে ৪৮টি, ডিএমডি ফজলুস সোবহানকে ৪৭টি, কনক কুমার পুরকায়স্থকে ২৩টি এবং ডিএমডি এ মোনায়েম খানকে ৩৫টি মামলায় আসামি করে দুদক।



দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162