আজ শুক্রবার, ১ পৌষ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
 / বিনোদন / আমার সিনেমা মানেই দর্শকদের বিনোদন : দেবাশীষ বিশ্বাস
ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Thursday, 7 December, 2017 at 5:19 PM, Count : 39
আমার সিনেমা মানেই দর্শকদের বিনোদন : দেবাশীষ বিশ্বাস

আমার সিনেমা মানেই দর্শকদের বিনোদন : দেবাশীষ বিশ্বাস

জনপ্রিয় উপস্থাপক ও নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাস নির্মাণ করছেন চল পালাই শিরোনামের চলচ্চিত্র। এ সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন চিত্রনায়ক শাহরিয়াজ, শিপন ও তমা মির্জা। আজ মহাসমারোহে শতাধিক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ খ্যাত নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাসের চতুর্থ ছবি চল পালাই। গতানুগতিক গল্পের বাইরে চল পালাই এমনটাই জানালেন তিনি।

সাক্ষাৎকার নিয়েছেন- রুহুল আমিন ভূইয়া-


৪ বছর পর নির্মাণ করলেন চল পালাই সিনেমাটি। এই লম্বা বিরতির কারণ কি?
লম্বা বিরতির কারণ হলো টেলিভিশন প্রোগ্রাম এ সময় দিতে হয়েছে। টেলিভিশন চাহিদা অনেক বেশি। তখন প্রোগ্রামের প্রেসার বেশি ছিল যার কারণে সিনেমা বানানোর সময় খুব কম পেয়েছি। এখন থেকে আর লম্বা বিরতি হবে না।

চল পালাই ছবিটি সম্পর্কে বলুন?
এটা একটা রোমান্টিক থ্রিলার সিনেমা। এ কারণে এখানে রোমান্স ও থ্রিল রয়েছে; রয়েছে অনেক কমেডি। ছবির গানগুলোতে দর্শক ভিন্নতা পাবেন। কারণ, গল্পের প্রয়োজনে সেখানেও কিছু চমক রয়েছে। পূর্ণ চলচ্চিত্র বলতে দর্শক যা চায়, এই ছবিতে তাই রয়েছে। আমি মনে করি দর্শক আমার আগের ছবির মতো এই ছবিটিও পছন্দ করবেন।

প্রথমবারের মতো শিপন, তমা মির্জা ও শাহ রিয়াজকে নিয়ে কাজ করেছেন।
তিন প্রধান চরিত্র নিয়েই দারুণ আশাবাদী। তমা মির্জা, শিপন মিত্র কিংবা শাহ রিয়াজ- তিনজনই নিজেদের চরিত্রকে যথার্থভাবে ফুটিয়ে তোলার জন্য পরিশ্রম করে গেছেন। চল পালাই তাদের অভিনয় জীবনের টার্নিং পয়েন্ট হয়ে উঠবে। আমি খুবই আশাবাদী ছবিটি নিয়ে। ওরা তিনজনই খুবই ভালো কাজ করেছে। আমি আশাবাদী ছবিটি দর্শকদের বিনোদিত করবে।

শুটিংয়ে কোনো ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হয়েছিলেন?
হ্যাঁ হয়েছিলাম। বান্দরবন বাংলাদেশের অনেক সুন্দর একটি জায়গা। এখানে সপ্তাহে তিন চার দিন বৃষ্টি হবেই। বান্দরবানে আমরা ১৬ দিন শুটিং করেছি। এর মধ্যে পাঁচ দিন বৃষ্টির কারণে কোনো শুটিংই করতে পারিনি। পুরো ইউনিট শুধু পিকনিকই করেছি। এক পর্যায়ে আমি হতাশ হয়ে যাই। পরে কিছু দৃশ্য রাতে করি। রাতে বৃষ্টি থাকত না। এ রকম অনেক কাহিনী ঘটেছে।

কি ধরনের চমক আছে সিনেমাতে?
পুরো ছবিটি দর্শকদের জন্য একটা চমক। দর্শকদের চমক দিতেই আমার সিনেমা তৈরি। সব সময় চেষ্টা করি দর্শকদের চমক দিতে। আর আমার সিনেমা মানেই দর্শকদের বিনোদন। তবে এতটুকু বলব দর্শক কিছু দেখে শিখে বাসায় ফিরবেন। দর্শকদের জন্য আরেক চমক হচ্ছে নায়লা নাঈমের আইটেম গান। গল্পের ধারাবাহিকতায় গানটির চাহিদা আছে। তাই এটিও দর্শকদের জন্য একটা বিশেষ চমক।

চল পালাই নিয়ে দর্শকদের উদ্দেশে কি বলবেন?
ভালো ছবির দর্শক সব সময় ছিল, থাকবে। মাঝখানে ভালো ছবি হয়নি দর্শক হলে যায়নি। দর্শক ক্ষুধার্ত ছিল ভালো ছবির জন্য। সেই তৃষ্ণা মিটিয়েছে আয়নাবাজি, ঢাকা অ্যাটাকের মতো ছবিগুলো। এছাড়া মন্দের ভালো ছবিগুলোও দর্শক দেখেছেন। তাই চল পালাই ছবিটিও ভালো লাগবে। 


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162