সোমবার, জুলাই ১৬, ২০১৮ | ৩১, আষাঢ়, ১৪২৫
 / আন্তর্জাতিক / রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর
ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Thursday, 11 January, 2018 at 10:02 AM, Update: 11.01.2018 11:56:32 AM, Count : 244
রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীরসংগৃহীত ছবি

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীরসংগৃহীত ছবি

রোহিঙ্গা হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে এই প্রথম স্বীকারোক্তি দিলেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইয়াং। গতকাল বুধবার ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে ১০ রোহিঙ্গাকে হত্যার কথা স্বীকার করেন তিনি। তবে বরাবরের মতোই রোহিঙ্গাদের ‘বাঙালি জঙ্গি’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন।

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীরসংগৃহীত ছবি

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীরসংগৃহীত ছবি



ফেসবুক পোস্টে সেনাপ্রধান বলেন, গ্রামবাসী ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীরা মিলে বাঙালি জঙ্গিদের বিরুদ্ধে এ হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে। তাদের প্রথমে আটক এবং পরে হত্যা করা হয়। তার ভাষায় ইনদিন গ্রামের কয়েকজন এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কয়েক সদস্য স্বীকার করেছেন যে, তারা ১০ বাঙালি জঙ্গিকে হত্যা করেছেন। ২০১৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর ওই হত্যাকাণ্ড চালানো হয়। নিহতদের গণকবর খুঁজে পাওয়ার পর এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে মিয়ানমার। অবশ্য এ বিষয়ে তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পাওয়ার পরই সেনাপ্রধান ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম।

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীরসংগৃহীত ছবি

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীরসংগৃহীত ছবি



গত ২৪ আগাস্ট রাতে মিয়ানমারের রাখাইনে পুলিশের ৩০টি তল্লাশি চৌকি ও একটি সেনাঘাঁটিতে হামলার পর ব্যাপক অভিযান শুরু করে দেশটির সেনাবাহিনী। নির্বিচারে হত্যা, ধর্ষণ, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের মুখে ঘর-বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে আসতে শুরু করে রোহিঙ্গারা। ঘটনার পর চার মাসে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় সাড়ে ছয় লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা।

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর



এটিকে ‘জাতিগত নির্মূল অভিযান’ হিসেবে বর্ণনা করে আসছে জাতিসংঘ। আর স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মেদসঁ সঁ ফ্রঁতিয়ের এক প্রতিবেদনে জানায়, রাখাইনে এক মাসেই ৬ হাজার ৭০০ মানুষকে হত্যা করা হয়। শত শত রোহিঙ্গা গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়ার প্রমাণও উঠে এসেছে স্যাটেলাইট চিত্রে। এর আগে ২০১২ সালের জুনেও রাখাইন রাজ্য সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় আক্রান্ত হয়েছিল। তখন প্রায় ২০০ রোহিঙ্গা নিহত হন। ওই সময় দাঙ্গার কবলে পড়ে প্রায় এক লাখ ৪০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছিল।

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীরসংগৃহীত ছবি

রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকারোক্তি মিয়ানমার সেনাবাহিনীরসংগৃহীত ছবি




দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162