বুধবার, অক্টোবর ১৭, ২০১৮ | ২, কার্তিক, ১৪২৫
 / জেলার খবর / ২য় বিয়ের জন্য স্ত্রীকে সেনা সদস্যের হত্যার চেষ্টা
রোকনুজ্জামান মানু, উলিপুর (কুড়িগ্রাম),ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Friday, 12 January, 2018 at 7:52 PM, Update: 12.01.2018 8:10:11 PM, Count : 400
২য় বিয়ের জন্য স্ত্রীকে সেনা সদস্যের হত্যার চেষ্টা

২য় বিয়ের জন্য স্ত্রীকে সেনা সদস্যের হত্যার চেষ্টা

কুড়িগ্রামের উলিপুরে ২য় বিয়ে করার অনুমতি না পেয়ে গলায় দড়ি পেঁচিয়ে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে এক সাবেক সেনা সদস্য। ঘটনাটি ঘটেছে, শনিবার (০৬ জানুয়ারী) রাতে উপজেলার ধরনীবাড়ী ইউনিয়নের তেলিপাড়া গ্রামে। বর্তমানে নির্যাতনের শিকার নাসরিন আকতার সুমি নামের গৃহবধু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় দুই সন্তানের জননী ওই গৃহবধু বাদী হয়ে স্বামী ও ২য় স্ত্রীর নামে উলিপুর থানায় বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারী) মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, উপজেলার ধরনীবাড়ী ইউনিয়নের তেলিপাড়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদের ২য় কন্যা নাসরিন আকতার সুমি (৩২) এর সাথে উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের রামরামপুর গ্রামের ডা. আবুল হোসেনের পুত্র সাবেক সেনা সদস্য জাহাঙ্গীর আলম (৩৬) এর সঙ্গে ১৬ বছর পূর্বে বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের ঘরে এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছে। এক বছর পূর্ব থেকে জাহাঙ্গীর আলম ২য় বিয়ে করার অনুমতি ও যৌতুকের দাবী করে আসছিল। তা না পেয়ে তাকে বিভিন্ন ভাবে শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করে। এরই মধ্যে গোপনে ওই সাবেক সেনা সদস্য রংপুর শহরের ছিটকেল্লাবন্দ গ্রামের জনৈক আঃ সামাদের কন্যা রংপুর সেনানিবাস প্রয়াসে (প্রতিবন্ধি বিদ্যালয়) কর্মরত শামিমা আখতার সুমি (৩৩) কে ১ম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই বিয়ে করেন।

এরপরও ২য় বিয়ের অনুমতি ও যৌতুকের চাপ অব্যাহত থাকা অবস্থায় নাসরিন আকতার সুমি নির্মম নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে শনিবার (০৬ জানুয়ারী) বাবার বাড়ি তেলিপাড়া গ্রামে চলে আসেন। ওই দিন রাতে জাহাঙ্গীর আলম ও তার ২য় স্ত্রী শামিমা আকতার প্রথম স্ত্রী  নাসরিন আকতার সুমির বাবার বাড়িতে আসেন। স্বামীর ডাকে সাড়া দিয়ে বাড়ির উঠানে বের হলেই আকস্মিক ভাবে তার উপর হামলা চালিয়ে তার শরীরের বিভিন্নস্থানে কিলঘুষি দিয়ে জখম করে ও তার গলায় রশি পেঁচিয়ে দুই জন মিলে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা চালায়।

এসময় তার আত্মচিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে ওই সেনা সদস্য ও তার ২য় স্ত্রী পালিয়ে যায়। পরে স্বজনরা নাসরিন আক্তার সুমিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে রয়েছেন। এ ঘটনায় গৃহবধু বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার স্বামী সাবেক সেনা সদস্য জাহাঙ্গীর আলম ও ২য় স্ত্রী শামিমা আখতার সুমির নামে উলিপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রফিকুল ইসলাম সরদার জানান, ওই গৃহবধুকে গলায় রশি পেঁচিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছিল। তার গলায় রশি পেঁচানোর মোটা দাগ রয়েছে। বর্তমানে তিনি সুস্থ্য আছেন।

উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ এসকে আব্দুল্যাহ আল সাইদ নাসরিন আক্তার সুমি নামের এক গৃহবধুকে হত্যা চেষ্টায় দুই জনের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, আসামীদের ধরার চেষ্টা চলছে।


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162