সোমবার, আগস্ট ২০, ২০১৮ | ৪, ভাদ্র, ১৪২৫
 / জাতীয় / বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি
নিজস্ব প্রতিবেদক, ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Tuesday, 13 February, 2018 at 11:48 AM, Count : 480
বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি

আজ পহেলা ফাল্গুন। প্রকৃতি সেজে উঠছে নানা রঙে। ঋতুরাজের আগমনে প্রকৃতির মতো মানুষের মনেও ছড়িয়ে পড়ে বসন্তের রঙ। বসন্তকে বরণ করে নিতে তাই প্রকৃতির রঙে রঙ মিলিয়ে সবাই মেতে ওঠে উৎসবে। ‘ফুল ফুটুক-আর নাই বা  ফুটুক-আজ বসন্ত।’ বাঙালির প্রিয় কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় বসন্তকে প্রতিভাত করে গেছেন এই একটি বাক্যেই।

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি



শীতের শুকনো বিবর্ণ সময় পেরিয়ে প্রকৃতিতে লেগেছে রঙ ও প্রাণের ছোঁয়া। হাজারো বাহারি ফুলে ভরে উঠেছে প্রকৃতি। নাগরিক জীবনেও লেগেছে ফাগুনের মাতাল হাওয়ার স্পর্শ।সূর্য ওঠার সাথেই হেসে উঠলো ঋতুরাজ বসন্তভালোবাসার এই বসন্তকে উদযাপন করতে নগর জুড়ে তাই নানা আয়োজন।

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি



বসন্তের প্রথম দিনে বাঙালি মেতে উঠেছে বসন্ত বরণে। ২৩ বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও রাজধানীতে বসন্ত উৎসবের আয়োজন করেছে জাতীয় বসন্ত উদযাপন পরিষদ।  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুলতলায় জাতীয় বসন্ত উৎসব উদযাপন পরিষদ আয়োজন করেছে বসন্ত উৎসবের। ‘এসো মিলি প্রাণের উৎসবে’- এই স্লোগান ধারণ করে সকাল ৭টা ৫ মিনিটে চারুকলা অনুষদের বকুলতলায় আয়োজন করা হয়েছে বসন্ত উৎসবের। দীপনের গীটার বাদনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় দিনের আনুষ্ঠানিকতা।

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি



বাসন্তী রঙে সেজেছেন মেয়েরা। পরেছেন বাসন্তী রঙের শাড়ি। খোঁপায় ফুল, মাথায় ফুলের টায়রা, হাতে ফুলের মালা আর কাঁচের চুড়িতে চিরায়ত বাঙালি সাজে সেজেছেন সবাই। ছেলেরাও লাল, কমলা, বাসন্তী রঙের পাঞ্জাবি বা ফতুয়া পরে এসেছেন বসন্ত বরণ উৎসবে। অনেকেই ছোট শিশুদের ফুলের গহনায় সাজিয়ে এনেছেন।

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি

বসন্ত বরণে মেতেছে বাঙালি



পরে দেশ সেরা বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বরেণ্য শিল্পীদের  নানা পরিবেশনায় মুখরিত হয় চারুকলা প্রাঙ্গন।সবাই হলুদ, বাসন্তি রঙের শাড়ি পরে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে বসন্তকে। পহেলা ফাল্গুন বাংলা পঞ্জিকার একাদশতম মাস ফাল্গুনের প্রথম দিন ও বসন্তের প্রথম দিন। গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জি অনুসারে ১৩ ফেব্রুয়ারি পহেলা ফাল্গুন পালিত হয়। বসন্ত বরণে ঢাকায় বিশেষ উৎসব পালিত হচ্ছে।


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162