বুধবার, অক্টোবর ১৭, ২০১৮ | ২, কার্তিক, ১৪২৫
 / আইন-আদালত / ‘অসুস্থ’ খালেদাকে আদালতে হাজির করা হয়নি
ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Thursday, 5 April, 2018 at 12:16 PM, Count : 184
‘অসুস্থ’ খালেদাকে আদালতে হাজির করা হয়নি

‘অসুস্থ’ খালেদাকে আদালতে হাজির করা হয়নি

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার শুনানিতে  অসুস্থ থাকায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে বকশীবাজারস্থ আদালতে হাজির করা হয়নি। আজ বৃহস্পতিবার (৫ এপ্রিল) শুনানিতে আগামী ২২ এপ্রিল পর্যন্ত বেগম জিয়াকে জামিন আদেশ দেন আদালত। এসময় দুদকের আইনজীবী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শুনানি করার আবেদন জানান।


আজ চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার উপস্থিতিকে ঘিরে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালত এলাকায় কঠোর নিরাপত্তাবেষ্টনী গড়ে তোলা হয়। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক আখতারুজ্জামান আদালতে আসেন।

এর আগে গত ২৮ মার্চ রাজধানীর বকশীবাজারে আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান খালেদা জিয়াকে আজ (৫ এপ্রিল) আদালতে হাজির করার জন্য কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। কিন্তু শারীরিক অসুস্থতার কারণে খালেদা জিয়াকে আজ আদালতে হাজির করা হচ্ছে না বলে জানান কারা কর্তৃপক্ষ।

এছাড়া গত ১৩ মার্চ রাজধানীর বকশীবাজারে আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান ২৮ ও ২৯ মার্চ খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করার জন্য কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। কিন্তু ঐ দিন অসুস্থতার কারণে খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করা হচ্ছে না বলে জানান কারা কর্তৃপক্ষ। পরে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আবদুল্লাহ আবু জানিয়েছেন, শারীরিক অসুস্থতার কারণে খালেদা জিয়াকে আজও আদালতে হাজির করা হচ্ছে না।

গত ৩০ জানুয়ারি এই মামলায় খালেদা জিয়াসহ সব আসামির সর্বোচ্চ সাজা অর্থাৎ সাত বছর কারাদণ্ড দাবি করে দুদক প্রসিকিউশন। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট রাজধানীর তেজগাঁও থানায় মামলাটি দায়ের করে দুদক। তদন্ত শেষে ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি খালেদা জিয়াসহ চারজনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়। এরপর ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে আসামিদের বিচার শুরু হয়।

খালেদা জিয়া ছাড়া মামলায় অপর আসামিরা হলেন- তার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর তৎকালীন সহকারী একান্ত সচিব জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও আর্থিক জরিমানা করা হয়। একই সঙ্গে তার বড় ছেলে তারেক রহমানসহ পাঁচ আসামিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড এবং প্রত্যেকের দুই কোটি ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা করে রায় ঘোষণা করে আদালত। এরপর খালেদা জিয়াকে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দীন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে।


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162