সোমবার, ডিসেম্বর ১০, ২০১৮ | ২৬, অগ্রহায়ণ, ১৪২৫
 / জাতীয় / নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতারা
নিজস্ব প্রতিবেদক, ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Monday, 16 April, 2018 at 6:05 PM, Count : 224
নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতারা

নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতারা

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের তিন নেতাকে চোখ বেঁধে ডিবি কার্যালয়ে তুলে নেয়ার পর থেকে পরিষদের সকলে এখন নিরাপত্তা ঝুঁকিতে রয়েছে। তুলে নেয়া তিন নেতারা সোমবার ডিবি কার্যালয় থেকে ফিরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন। তারা তিন জনই এসময় সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। এছাড়াও তারা সরকারের নিকট নিরাপত্তা দেয়ার জন্য জোর দাবি জানান।

এসময় রাশেদ খান বলেন, কোনো দোষ নেই আমার বাবার। ছেড়ে দেয়া হোক তাকে। কষ্ট করে লেখাপড়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠিয়েছেন আমাকে। তাকে আটক করাটা অনেক অনেক কষ্টকর। আমার বাবার কাছ থেকে এখন জোরপূর্বক স্বীকারোক্তি আদায়ের চেষ্টা চলছে। অপর দিকে নুরুল হক নুর বলেন, আমাদের গুলিস্তানে নেয়ার পর গামছা কিনে চোখ বাঁধা হয়। সেই সাথে মাথায় হেলমেটও পড়ানো হয়। পরে ডিবি অফিসে নিয়ে যায়।।

ডিবি পুলিশ বলেছে, তোমাদের ওপর হামলার আশঙ্কা ছিল। সেজন্য নিয়ে আসা হয়েছে। এসময় তারা আমাদের একটি ভিডিও দেখানোর কথা বলেন। কিন্তু আমাদেরকে তারা কোনো ভিডিও দেখায়নি। আর ছেড়ে দেয়ার সময় বলে, যদি পরবর্তীতে আবার ডাকা হয় তাহলে ডিবি অফিসে যেতে হবে।

নুর দাবি করে বলেন, ‘এটি একটি অপহরণ। মিডিয়া না জানলে হয়তো ফিরে আসতাম কি-না সন্দেহ।’

এসময়  ফারুক হাসান বলেন, আমাদের ওপর হামলা হবে বলে নিয়ে আসা হয়। ডিবি কার্যালয়ে পানি খেতে চাইলে দেয়া হয়নি। নিজেদের নিরাপত্তার পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদেরও নিরাপত্তা দাবি করছি। নিরাপত্তা ইস্যু থাকতেই পারে। সরকার ডাকলেই কিন্তু যেতাম। বলে কয়ে নিয়ে গেলে তো আমরা পালাতাম না। অবশ্যই যেতাম। এভাবে না নিয়ে গেলেই পারতো।

কোটা সংস্কারের আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীসহ বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাদের নিরাপত্তার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন শেষে প্রতিবাদ মিছিল বের হয়। মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শাহবাগ মোড় পর্যন্ত পদক্ষিণ করে। মিছিলে তারা স্লোগান দেয় ‘গুম করে আন্দোলন থামানো যাবে না।’

এর আগে সংগঠনের আহবায়ক হাসান আল মামুন সোমবার (১৬ এপ্রিল) সকালের দিকে জানিয়েছিলেন, সংবাদ সম্মেলন শেষে চানখারপুলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের সামনে থেকে একটি সাদা মাইক্রোবাস এসে তাদের তুলে নেয়। তারা হচ্ছেন, পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক নুরুল হক নুর, ফারুক হাসান, রাশেদ খান। ওই মাইক্রোবাসে সাদা পোশাকের পুলিশ ছিল, তারা এসে এই তিন নেতাকে তুলে নিয়েছেন বলেও জানিয়েছিলেন। 


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162