এই মাত্র পাওয়া :
শনিবার, জুন ২৩, ২০১৮ | ৯, আষাঢ়, ১৪২৫
 / এক্সক্লুসিভ / স্বজনহারা নজরুল ইসলাম ফয়সালের ঈদ
ওয়াসিম এমদাদ, ঢাকা,ডেসটিনি অনলাইন :
Published : Monday, 11 June, 2018 at 2:27 PM, Update: 12.06.2018 1:25:41 AM, Count : 786
স্বজনহারা নজরুল ইসলাম ফয়সালের ঈদ

স্বজনহারা নজরুল ইসলাম ফয়সালের ঈদ

মানুষ মরণশীল, একথা চিরন্তন সত্য। কিন্তু মাঝেমাঝে সত্যটা মেনে নেয়া কঠিন হয়ে যায়। তার চেয়ে বেশি কঠিন পরিবারের কোন সদস্যকে হারিয়ে স্বভাবিক জীবন যাপন করা। তবুও আমাদেরকে এ চরম সত্য মেনে নিয়েই বেঁচে থাকতে হয়। কিন্তু একজন মানুষ যখন তার পরিবারের সকল সদস্যকে একসাথে হারায় তখন তার পক্ষে পৃথিবীতে বেঁচে থাকাটা অনর্থক এবং অসম্ভব মনে হয়। তবুও ২০০৪ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় মা, বাবা, ভাই, বোন, মামাকে হারিয়ে আশায় বুক বেঁধে বেঁচে আছেন একজন "নজরুল ইসলাম ফয়সাল"।


ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি। আর মাত্র কয়েক দিন পরেই আসছে ঈদুল ফিতর। আমাদের সবার জীবনে বয়ে আসবে আনন্দের বন্যা। কিন্তু কেমন কাটবে এই স্বজনহারা নজরুল ইসলাম ফয়সালের ঈদ! এ বিষয়ে তার কাছে জানতে চাইলে তিনি আর নিজেকে ঠিক রাখতে পারলেন না। চোখের কোণে জমে থাকা জল মুছে জানালেন এতগুলো বছর কিভাবে কাটছে তার আপনজনবিহীন ঈদ!
স্বজনহারা নজরুল ইসলাম ফয়সালের ঈদ

স্বজনহারা নজরুল ইসলাম ফয়সালের ঈদ


তিনি বলেন, ২০০৪ সালে পরিবারের ৬ সদস্যকে একসঙ্গে হারিয়ে আমি যখন নির্বাক, হতবাক এবং নিঃস্ব প্রায়। তখন থেকে আমার জীবনে ঈদ আসে ঈদ যায়, কিন্তু ঈদের আনন্দ আমার কাছে বেদনার দাবানলে পরিণত হতে লাগলো। তবুও একটু একটু নিজেকে সামলে নিয়ে পাড়ি দিচ্ছি জীবনের প্রতিটি মূহুর্ত। আর এই সামলে নেয়ার পেছনে যারা সবচেয়ে বেশি ভুমিকা পালন করেছেন তারা হচ্ছেন আমার পিতৃতুল্য ডেসটিনি গ্রুপের এমডি জনাব মোহাম্মদ রফিকুল আমিন এবং চেয়ারম্যান জনাব মোহাম্মদ হোসাইন স্যার। উনারাই মূলত আমার স্বাভাবিক জীবন যাপনের প্রধান অবলম্বন।

এসময় তিনি আরও বলেন, আমার জীবনের ঈদগুলো এখন আমি স্বজন হারা অসহায় মানুষদের পাশে কাটাতে চাই। কারণ আমি জানি আপনজন হারানোর ব্যাথা। প্রতি ঈদে সবাই যখন মা-বাবা, ভাই-বোনের সাথে আনন্দ করে তখন আমি অশ্রুজলে ভাসতাম। সবাই যখন নতুন জামা পরতো আমি তখন পুরনো জামা দিয়ে ঈদ করতাম। এরপর যখন নিজে আয় করা শুরু করলাম, তখন প্রতি ঈদে আমি স্বজনদের কবর যিয়ারত করতাম, আর রফিকুল আমিন স্যার ও হোসাইন স্যারের সাথে দেখা করে দোয়া নিতাম। কারণ, তারাই আমাকে সাবলম্বি করার জন্য আমার বাবা মায়ের ডেসটিনি ২০০০লিঃ এর বিজনেস সেন্টার আমাকে হস্তান্তর করেন। এখন থেকে আমি অসহায়দের পাশে দাঁড়াবো এবং তাদের সাথে ঈদ করার চেষ্টা করব। ইতিমধ্যে আমি বিভিন্ন মাধ্যমে পথশিশুসহ অসহায় ও অসুস্থ মানুষের কল্যাণে কাজ করা শুরু করেছি। আশা করি এবারের ঈদ আমার ভালো কাটবে। আর আগামীতে প্রতিটি ঈদ যেন অসহায়, গরীব ও স্বজনহারা মানুষের সাথে কাটাতে পারি সে জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।

এছাড়া নজরুল ইসলাম ফয়সাল নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) এর কেন্দ্রীয় কার্যকরি কমিটির সদস্য হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। ঈদে ঘরমুখো মানুষের উদ্দেশে তিনি বলেন, অতিরিক্ত যাত্রী হয়ে কেউ যানবাহনে চড়বেন না। কারণ একটি দুর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না।

তিনি বলেন, আমি চাই না, আর কোন মানুষ সড়ক দুর্ঘটনায় আপনজন হারাক। আমার মত দুর্বিষহ ঈদ যেন কারো জীবনে না আসে। আমি আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি, প্রতিটি মানুষ নিরাপদে বাড়ি ফিরুক। আপনজন নিয়ে হাসি আনন্দময় ঈদ উৎযাপন করুক।


দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০০৬-২০১৮ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162